রংপুরের ঠাকুরপাড়ার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেন —-মির্জা ফকরুল
আব্দুর রহমান রাসেল,রংপুর:
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, রামু, নাসিরনগর ও পাবনার ঘটনায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই জড়িত ছিল । তিনি বলেন ,আওয়ামীলীগ সব সময় অন্যের দোষ ধরে । পুরোনো খতিয়ান খুলে দেখুন, কার আমলে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর সবচেয়ে বেশি হামলা হয়েছে। আওয়ামীলীগ সরকারের আমলেই এ দেশে সংখ্যালঘুদের উপর সবচেয়ে বেশি হামলা হয়েছে।
ফেসবুকে ধর্মীয় উস্কানিমূলক পোষ্ট দেয়ার অভিযোগে রংপুর সদর উপজেলার ঠাকুরপাড়ায় হিন্দুদের বাড়িতে অগ্নি সংযোগ, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে শেষে গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।
রংপুরের ঠাকুরপাড়ায় জাতীয়তাবাদি ওলামা দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর জেলার সভাপতি ইনামুল হক মাজেদীর জড়িত থাকার বিষয়ে তিনি বলেন, কোথায় বিএনপির লোকজন জড়িত ছিল। রামুর ঘটনায় আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতৃবৃন্দ জড়িত। নাসিরনগরেতো উপজেলা চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে প্রকাশ্যে হামলা হয়েছে তা সবাই দেখেছে।
ঠাকুরপাড়ায় যদি দুই-একজন থেকে থাকে তাহলে সেটা তার ব্যক্তিগত অপরাধ। এজন্য তাকে শাস্তি পেতে হবে। দল, দলের নেতারা বা আমাদের যারা সত্যিকারের সামনের লোক তারা কখনো এসব কর্মকা-ে জড়াবে না।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এখানে হিন্দু, মুসলিম এক সঙ্গে বাস করে আসছে এবং আগামীতেও থাকবে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক যে, কিছু দুর্বৃত্ত এ সম্পর্কের ফাটল ধরাতে চায়। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সহমর্মিতা জানিয়ে বিএনপি তাদের পাশে থাকবে বলে অভয় দেন তিনি।
আওয়ামীলীগ ২০১৪ সালের মতোই আবারো বিনা ভোটে ক্ষমতায় আসার পরিকল্পনা করছে জানিয়ে তিনি বলেন, এখন সত্য কথা বলা যায় না। বিচারালয়, গণমাধ্যম তাদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। আওয়ামীলীগের সাথে ভিন্ন মত পোষন করার কারণে প্রধান বিচারপতিকে দেশ ছাড়তে হয়েছে।
মীর্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামীলীগ গণতন্ত্রকে হরণ করেছে। আমাদের আন্দোলন সংগ্রাম করে জনগণের ভোটাধিকার পুনরুদ্ধার করতে হবে। আমরা বলছি নিরপেক্ষ ও নির্দলীয় সরকারের অধিনে নির্বাচন করতে। যে নির্দলীয় সরকার নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা দিয়ে একটি গণতান্ত্রিক সরকার উপহার দেবে। আমরা আশা করছি সরকারের শুভ বুদ্ধি উদয় হবে।
তিনি আরো বলেন, যখন কোন রাজনৈতিক দল কর্মসূচী দেয় সেখানে বিএনপি কোন কর্মসূচী দেয় না। এটা বিএনপির রাজনৈতিক শিষ্টাচার।
রংপুরের ঠাকুরপাড়ার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করে রামু, নাসিরনগরের মতোই বিএনপি এখানে উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত দল পাঠাবে বলেও তিনি জানান।
সংখ্যালঘুদের ওপর এই নির্যাতনের বিচার দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, রংপুরের ঘটনা তদন্তে বিচার বিভাগীয় তদন্ত করতে হবে। তবে ওই তদন্তের কাজে এমন কাউকে নিয়োগ করা যাবে না, যারা সরকার প্রভাবিত। কারণ বর্তমানে বিচার বিভাগ সরকারের প্রভাবমুক্ত নয়। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিদায় তারই প্রমাণ। ফখরুল আরো জানান, বিএনপির পক্ষ থেকেও তদন্ত দল গঠন করা হবে। দেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক এটাই বিএনপি চায়।
আসন্ন রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীতার বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, সঠিক সময়ে সঠিক প্রার্থীর নাম ঘোষণা দেয়া হবে।
রোববার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর কাদেরের সঙ্গে একই বিমানযোগে রংপুর আসা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রাজনৈতিক শিষ্টাচার থেকেই তিনি ওইদিনের কর্মসূচি স্থগিত করেছিলেন।
পরে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর মাঝে নগদ ১০হাজার করে টাকা ও শাড়ি-লুঙ্গি বিতরণ করেন তিনি।এসময় বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু, সাবেক সংসদ সদস্য পরিতোষ চক্রবর্তি, মোহাম্মদ আলী সরকার, জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রইচ আহম্মেদ, রংপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি মোজাফ্ফর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজু, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, জেলা যুবদল সভাপতি নাজমুল আলম নাজু, সেক্রেটারী সামসুল হক ঝন্টু, মহানগর যুবদল সভাপতি মাহফুজ উন নবী ডন, সেক্রেটারী লিটন পারভেজ, সাংগঠনিক সম্পাদক জহির আলম নয়ন, জেলা ছাত্রদল সভাপতি মনিরুজ্জামান হিজবুল, সেক্রেটারী শরীফ নেওয়াজ জোহা, মহানগর ছাত্রদল সভাপতি নুর হাসান সুমন সহ বিভিন্ন নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

(Visited 1 times, 1 visits today)

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: