তরিকুল ইসলাম জেন্টু,আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ খাদ্যশস্য ভান্ডার নামে পরিচিতি থাকলেও চলতি মৌসুমে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার আমন ধান কাটা-মাড়াই শুরু হওয়ায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কৃষক-কৃষাণীরা। এদিকে নতুন ধানের গন্ধে মুখরিত হয়ে উঠেছে গ্রাম-গঞ্জে। অগ্রহায়ণের শুরুতেই বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার ঘরে ঘরে চলে নতুন ধানের গন্ধে নবান্নের মহাউৎসবের আমেজ।
আদমদীঘি কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, আদমদীঘি উপজেলায় চলতি বছরে ১২ হাজার ৪ শত হেক্টর জমির মধ্যে ৩ হাজার ৫শ হেক্টর জমির রোপা আমন ধান আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয় এবং ১ হাজার ৬শ হেক্টর জমির রোপা আমন ধান একেবারেই পচে নষ্ট হয়ে যায়। প্রায় ৫ হাজার কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হলেও বাকি এলাকায় আমন ধান পুরোদমে কাটা মাড়াই চলছে।
পহেলা অগ্রহায়ণ এলেই উপজেলার জিনইর, শালগ্রাম, তেতুলিয়া, কেসরতা, ডহরপুরসহ আশপাশের সকল গ্রামে বাড়িতে বাড়িতে জামাই-মেয়ের দাওয়াত; গ্রামে গ্রামে নানা ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা করতে দেখা যায়।
এদিকে জামাই মেয়েসহ অত্মীয়স্বজন সমাদর করতে বিভিন্ন গ্রামে দেখা যায় গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া জবাই করছে এমন কি নবান্ন উপলক্ষে গ্রামের মধ্যে মাইকিন করে গরু, মহিষের মাংসও বিক্রি করা হয়ে থাকে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: