তারিখ

শনিবার, ১১ই জুলাই, ২০২০ ইং, রাত ১২:৫২, ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী

মোঃ আফজাল হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধি–দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার ০৯ নং হামিদপুর ইউনিয়নে ইট ভাটার ধোয়ায় পঁচে যাচ্ছে না আম, ছত্রাক জাতীয় রোগে পঁচে যাচ্ছে আম। পার্বতীপুর উপজেলার আম বাগান গুলোতে কি কারণে হঠাৎ করে ছত্রাক জাতীয় রোগ ও পোকার কারণে দুশ্চিন্তায় পড়েছে ঐ এলাকার আম চাষীরা। হঠাৎ করে আমের ফাটল ও আমের উপরের অংশে কালো দাগ ও পচন ধরে গাছ থেকে পড়ে যাচ্ছে আম। যার ফলে আম বাগানের মালিক ও আম চাষীরা মারাত্বক ক্ষতির মূখে পড়েছে। রোগ ও পোকামাকড় থেকে আম বাগান গুলিকে বাঁচাতে বিভিন্ন ধরনের ঔধষ ব্যবহার করছে আম চাষীরা। আবার দাবাদহের কারণে আম গাছে এক প্রকার পোকার আক্রমন দেখা দিয়েছে। আমের গোড়া ও ফলে পচন ধরে যাচ্ছে। গাছ থেকে পড়ে যাচ্ছে আম। কোন বাগানে আম কালো হয়ে ফেটে যাচ্ছে। এ অবস্থায় আম বাগান চাষীরা কি করবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। কৃষিকর্মকর্তারা বলেছেন ইট ভাটার ধোয়ায় নয়, প্রচন্ড গরম ও অত্যাধিক ঔষুধ প্রয়োগ করার কারণে আম বাগান গুলোর এই অবস্থা হতে পারে বলে তিনি মনে করেন। তবে পার্বতীপুর ০৯ নং হামিদপুর ইউনিয়নের ধুলাউদাল থেকে আমের বাগানগুলি প্রায় ১০-১৫ কি.মি দূরে ফলে ইট ভাটার ধোয়ায় আমের বাগানের এত দূরে ক্ষতি হওয়ার কোন প্রশ্ন আসেনা। একটি কুচক্রী মহল ইট ভাটার ধোয়ায় আম ও ধান সহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি উল্লেখ্য করেন। কিন্ত আলহাজ্ব রাহেনুল ইসলাম আর এম ব্রিকস এর সত্ত্বাধীকারী জানান, আমি প্রত্যেকটি আম বাগানে গিয়েছি ভাটা থেকে ১৫-২০ কি.মি. দূরে সেখানে আমের বাগানের ভিতর ঢুকে দেখা যায় আমের কিছু অংশ কালো হয়ে পঁচে যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে ইট ভাটার ধোয়ায় ক্ষতি কোন প্রাশ্ন আসে না। বর্ষা মৌসুমে ৩মাস আগে ইট পোড়ানো বন্ধ হয়ে গেছে। ধুলাউদালে অনেক ভাটা রয়েছে অন্য কোন ভাটার নাম উল্লেখ্য না করে শুধু আমার ভাটার নাম উল্লেখ্য করে লেখা হয়েছে। বছরে যে সময় ভাটায় ইট পোড়ানো হয় সেই সময় ফসলের কোন ক্ষতি হয় না। আর ইট ভাটার আসেপাশে আবাদি জমি ও আমের কোন বাগান নাই। গত বুধবার ধুলাউদাল থেকে প্রায় ১৫-২০ কি.মি দূরে আম বাগান গুলি ঘুরে দেখা যায় অতিরিক্ত স্প্রে ও দাবাদহের কারণে আম গুলির এই অবস্থা। ১৫-২০ কিলোমিটারের মধ্যে কোন আম বাগান নাই।

(Visited 1 times, 1 visits today)

বার্তা সম্পাদক

আশিকুর রহমান শ্রাবণ

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: