লোহাগড়া(নড়াইল)প্রতিনিধি -নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পুরাতন ভবনের সবকটি ওয়ার্ড ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করার পর বারান্দা ও মেঝেতে ঠাঁই হয়েছে অনেক রোগীর। নানা সমস্যায় জর্জরিত এখানের স্বাস্থ্যসেবা।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,নতুন ভবণে রোগীদের জন্য রয়েছে একটি কমোট টয়লেট ও একটি নরমাল টয়লেট। কমোট টয়লেট নষ্ট। তিনতলার বারান্দায় বিদ্যুতের ব্যবস্থা নেই। ফ্যান নেই। নতুন ভবণের তিনতলার দক্ষিণপাশের্^ অনেক ফাঁকা জায়গা রয়েছে। সেখানে টিন দিয়ে ঘিরে দিলে রোগী রাখা যেতে পারে। আবার তিনতলায় বিশাল কনফারেন্স রুম ফাঁকা পড়ে আছে। ওই রুমে অনেক রোগী রাখা সম্ভব।শুক্রবার সকালে লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যলয়ের ক্রীড়া শিক্ষক দিলীপ চক্রবর্তীর নেতৃত্বে ১৫ জন স্কাউটস ও খোলোয়াড় পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানোসহ শয্যা(বেড) স্থানান্তরের কাজ করেছে। পৌর কাউন্সিলর সৈয়দ শাহাজান সিরাজ বিদ্যুৎ বলেন, পৌরসভার নিজস্ব বৈদ্যতিক মিস্ত্রি ও পরিচ্ছন্ন কর্মীরা কাজ করছে।আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম কিনে দেয়া হয়েছে। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ না পেলে কনফারেন্স রুম ব্যবহার করা যাচ্ছে না।

(Visited 1 times, 1 visits today)

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: