হেরপুর প্রতিনিধি-মেহেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোস্তাফিজুর রহমান শান্ত (৪০) নামের এক ঔষধ কোম্পানীর কর্মকর্তা মারা গেছেন। এ সময় নিহতের স্ত্রী, সন্তান, শাশুড়ী ও মাইক্রো চালক আহত হয়।
শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে সদর উপজেলার আলমপুরে ইটভাটার মাটি সড়কে পড়ে কাদা হওয়ার কারণে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের একটি গাছের সাথে ধাক্কা মারলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত মোস্তাফিজুর রহমান শান্ত কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার আজিজুল ইসলামের ছেলে। তিনি এ্যালকো ফার্মাসিউটিক্যালস লি. নামের একটি ঔষধ কোম্পানীর মেহেরপুর জেলা ম্যানেজার হিসেবে কর্মকর্তা ছিলেন। চাকুরীর সুবাদে মেহেরপুর শহরের ঘোষপাড়ায় বাড়ি করে বসবাস করতেন।
আহত স্ত্রী শামিমা সুলতানা সাথী মেহেরপুর সদর উপজেলার বামনপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। দুই বছরের ছেলে শির্ষ, শাশুড়ী সামসুন্নাহার ও মাইক্রো চালক মুজিবনগরের আনন্দবাস গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে টুটুল।
আহত স্ত্রী ও শাশুড়ীর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদের দুজনকেই ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।
জানা গেছে, নিহত মোস্তাফিজুর রহমানের ২ বছরের ছেলে শীর্ষ কয়েকদিন আগে ঘর থেকে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পায়। সেই থেকে সে বমি করতে থাকে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকরা ঢাকায় স্থানান্তর করে। শুক্রবার রাতে ছেলের অবস্থা খারাপ দেখে মাইক্রো ভাড়া করে রাতেই স্ত্রী, শাশুড়ীসহ ছেলে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রওয়ানা হন। এদিকে পথিমধ্যে আলমপুর নামক স্থানে পৌছালে ইটভাটার মাটি রাস্তায় পড়ে বৃষ্টির কারণে কাদা হয়ে যায়। সেখানে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে একটি গাছের সাথে ধাক্কা মারে। এতে ঘটনাস্থানেই মোস্তাফিজুর রহমারে মৃত্যু হয়। রাতেই স্থানীয়দের খবরে সদর থানা পুলিশের একটি দল ও মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ইউনিটের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারের হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মোস্তাফিজুর রহমানকে মৃত ঘোষনা করেন।
মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা.শরিফুল ইসলাম জানান, মোস্তাফিজুর রহমান হাসপাতালে পৌছানোর আগেই মারা গেছেন। আহত স্ত্রী ও শাশুড়ীর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদের দুজনকেই ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।
মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ দারা খান জানান, এ ঘটনায় নিহতের পরিবার থেকে ময়না-তদন্ত না করার আবেদন করায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশ নিহতের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

(Visited 1 times, 1 visits today)

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: