শাহ সুলতান আহমেদ নবীগঞ্জ থেকে : হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলায় পুলিশ পৃথক দুটি স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৩ জন জুয়াড়িকে গ্রেফতার করেছে। পরে তাদেরকে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তার নিকট সোপর্দ করলে তিনি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে তাদেরকে জরিমানা ও বিভিন্ন মেয়াদে সাঁজা প্রদান করেছেন। নবীগঞ্জ উপজেলার গোপলার বাজার ফাঁড়ির এসআই কাওছার মাহমুদ তোরন জানান-গত মঙ্গঁলবার সন্ধা সাড়ে ৬ টায় গোপন সংবাদ পেয়েছেন যে, উপজেলার ১১ নং গজনাইপুর ইউনিয়নের লামরোহ গ্রামের একটি দোকানের পেছনে একদল যুবক জুয়া খেলছে। তাৎক্ষনিক তিনি একদল পুলিশ নিয়ে সেখানে অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় ৪ জনকে গ্রেফতার করেন তারা হল-স্থানীয় লামরোহ গ্রামের মৃত ছাও মিয়ার পুত্র আব্দুল সালাম (৩০) ওয়াহিদ উল্লার পুত্র সুহেল আহমেদ (২৮) মৃত লেবু মিয়ার পুত্র বাবুল মিয়া (৩০) মৃত মছদ্দর আলীর পুত্র রুহেল মিয়া (৩৬) কে গ্রেফতার করেন। এ সময় অপর স্থান থেকে রাত সাড়ে ৮ টায় গোপন সংবাদ আসে যে একই ইউনিনের শতক গ্রামের রাস্তার পার্শ্বে আরেকটি জোয়ার আসর বসছে। তড়িঘড়ি করে সেখানে গিয়ে আরো ৯ জনকে গ্রেফতার করেন-তারা হল শতক গ্রামের নছর মিয়ার পুত্র কাউছ মিয়া (২৫) আব্দুল করিম মিয়ার পুত্র মহসিন মিয়া (৩৫) শতক (বড়ইতলা) গ্রামের মৃত আব্দুল করিম মিয়ার পুত্র ফিরোজ মিয়া (৩২) আমজাদ মিয়ার পুত্র মিলন মিয়া (৩৫) মুজিব আলীর পুত্র মোশাররফ (৩০) সালামত মিয়ার পুত্র হামিদ মিয়া (৩৫) ছনাওর উল্লার পুত্র আতাউর রহমান (৩৬) আনোয়ার মিয়ার পুত্র ইকবাল হোসেন (২৭) আমির উল্লার পুত্র আনোয়ার মিয়া (৩৭)। পরে তাদেরকে গতকাল বুধবার দুপুরে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহি অফিসার ও নির্বাহি ম্যাজিষ্ট্রেট তৌহিদ বিন হাসানের কাছে সোপর্দ করলে তিনি ভ্রাম্য আদালতের মাধ্যমে ১১ জনকে জনপ্রতি ১শ টাকা জরিমানা ও সুহেল আহমেদকে এক মাসের সাঁজা ও আব্দুল সালামকে সাত দিনের সাজাঁ প্রদান করেছেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন গোপলার বাজার ফাঁড়ির এসআই মাজহারুল ইসলাম।

(Visited 1 times, 1 visits today)

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: