ফেনী প্রতিনিধি: ফেনীতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উদাযাপিত হয়েছে। মহান বিজয় দিবস পালন উপলক্ষে দিন ব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসাবে রোববার ১৬ ডিসেম্বর সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়।
সকল সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, বেসরকারি ভবন ও প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, স্থানীয় সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী, ফেনী পৌর মেয়র হাজী আলা উদ্দিন, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনও পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। সকাল সাড়ে ৯টায় ভাষা শহীদ সালাম ষ্টেড়িয়ামের মাঠে জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুজজামান, আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।
একই স্থানে বীর মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, বিএনসিসি, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান, শিশু-কিশোর সংগঠন, কারারক্ষী, বাংলাদেশ স্কাউট, রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড কর্তৃক কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান এবং শরীরচর্চা প্রদর্শনী করে। পরে বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন বেসরকারী প্রতিষ্ঠান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্টানের আয়োজন করে। জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা বিএনপি, জাতীয় পার্টি, সিপিবি, জেলা পরিষদ, ফেনী প্রেসক্লাব, রিপোর্টার্স ইউনিটি, জেলা আইনজীবী সমিতি, জেলা শিক্ষক সমিতি, ছাত্রলীগ, ছাত্রদল, ছাত্র ইউনিয়ন,জেলা ক্রীড়া সংস্থা, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, আর্য সাংস্কৃতিককেন্দ্র,লায়ন ক্লাব, রোটারী, রোটারেক্ট ক্লাব, ফেনী থিয়েটার, খেলাঘর, ফেনী সরকারি কলেজ, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মাস্তল ফেনী শাখা, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন স্মৃতিস্তম্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।
বেলা ১১টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সন্তানদের সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রসাশক মোঃ ওয়াহিদুজজামান, পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার, সিভিল সার্জন ডা: হাসান শাহরিয়ার কবির, সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মীর আবদুল হান্নান। দুপুর ২টা থেকে শহরের সিনেমা হলসমূহে শিক্ষার্থীদের বিনা টিকিটে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। সারাদিন রাজাঝির দিঘীর পাড়স্থ জেলা পরিষদ শিুশু বিনা টিকেটে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়। হাসপাতাল, জেলখানা, বৃদ্ধাশ্রম, এতিমখানা, শিশু সদন ও ভবঘুরে প্রতিষ্ঠানসমূহে বিশেষ খাবার পরিবেশনের ব্যবস্থা রাখা হয় ।
জাতির শান্তি ও অগ্রগতি কামনা করে বাদ জোহর মসজিদে বিশেষ মোনাজাত এবং মন্দির, গীর্জা, প্যাগোডা ও অন্যান্য উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা করা হয়। জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে ‘সুখী, সমৃদ্ধ, বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ডিজিটাল প্রযুক্তির সার্বজনীন ব্যবহার এবং মুক্তিযুদ্ধ’শীর্ষক আলোচনা, সিম্পোজিয়াম এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

(Visited 1 times, 1 visits today)

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: