হুমায়ুন কবীর, কেন্দুয়া প্রতিনিধি ঃ
নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় রাস্তায় ধানের খড় শুকানোকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৩০জনের মতো লোক আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে মারাত্মক আহত ১১জনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। রেফার্ডকৃতরা হলেন, পালন মিয়া (২৫), চাঁন মিয়া (৬০), হায়দার (৩০), জুলহাস (১৭), কালা চান (৩৫), তুষার (২০), ওবায়দুল (৪০), কামাল (৪০), মাহতাব (৩৮), জামাল উদ্দিন (৪৫) গোলাপ মিয়া (৪০)। বাকীরা কেন্দুয়া উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (৫ জুন) সকালে উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের কাউরাট গণিতাশ্রম গ্রামের খিলাপাড়ায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেন। জানা গেছে, খিলাপাড়া গ্রামের বাবুল মিয়া গ্রামের রাস্তায় ধান মাড়াইয়ের খড় শুকাতে দেন। একই স্থানে খিলাপাড়ার মসলু মিয়া ও তার পুত্র আসাদুল মিয়া ধান মাড়াই করতে প্রস্তুতি নেন। পরে খড় ফেলে দেয়ার অভিযোগে উভয়পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি থেকে ঝগড়া হয়। এরই জের ধরে মঙ্গলবার সকালে উভয়পক্ষের লোকজন দেশিয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে।
কেন্দুয়া থানা ওসি ইমারত হোসেন গাজী জানান, পূর্ব থেকেই দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে সংঘর্ষ হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

সম্পাদক ও প্রকাশক

কাজী জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

ই-মেইল: jahangirbhaluka@gmail.com
নিউজ: bsomoy71@gmail.com

মোবাইল: ০১৭১৬৯০৭৯৮৪

%d bloggers like this: